আফগানিস্তানে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ঘোষণা করেছে তালেবান। এতে মোল্লা মোহাম্মদ হাসান আখুন্দকে প্রধান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) তালেবানের মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ এ তথ্য জানান।

তালেবানের মুখপাত্র বলেন, আফগানিস্তানের নতুন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের ডেপুটি হিসেবে কাজ করবেন তালেবানের সহ-প্রতিষ্ঠাতা আব্দুল গনি বারাদার। আর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছেন সিরাজুদ্দিন হাক্কানি।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, নতুন সরকারে ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন মোল্লা ইয়াকুব। ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন আমির খান মুত্তাকি। আর দ্বিতীয় ডেপুটি হিসেবে রয়েছেন মোল্লা আবদুল সালাম।

তালেবান সরকার ঘোষণার আগে অর্থমন্ত্রী, ভারপ্রাপ্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী এবং ভারপ্রাপ্ত উচ্চ শিক্ষামন্ত্রীর নাম ঘোষণা করেছিল। তবে নতুন ঘোষিত চার মন্ত্রণালয়ের মধ্যে স্বরাষ্ট্র ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে পরিবর্তন আনা হয়েছে।

এ দিন সকালে এনডিটিভি অনলাইনে প্রকাশিক প্রতিবেদনে বলা হয়, খুব দ্রুত তালেবানের নেতৃত্বে নতুন সরকার গঠন করা হবে। আফগানিস্তানের সম্ভাব্য সরকারের প্রধানমন্ত্রী হতে পারেন মোল্লা হাসান আখুন্দ। জাতিসংঘের সন্ত্রাসীর তালিকায় রয়েছে তার নাম।

এর আগে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল তালেবানের দখলে যায় গত ১৫ আগস্ট। সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) সবশেষ প্রদেশ পানশির নিয়ন্ত্রণে নেন তালেবান সদস্যরা।

স্থানীয় সময় ৩০ আগস্ট রাতে কাবুল ছাড়ে শেষ মার্কিন সেনা। এর মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ২০ বছরের আফগান যুদ্ধের সমাপ্তি ঘটে।