নাসির শরীফ, উজিরপুর প্রতিনিধিঃ
বরিশাল জেলার উজিরপুর উপজেলার শোলক ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য হুমায়ুন কবির টুলুর উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বররা। ৪ আগষ্ট বেলা ১১ টায় শোলক ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রধান কার্যালয়ে ইউপি চেয়ারম্যান ডাঃ আঃ হালিম সরদার সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে বলেন ওই ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য আন্তর্জাতিক প্রতারক চক্রের সদস্য, জিনের বাদশা নামে খ্যাত তানভীর হোসেন ফারুক(৩৫)এর সাথে বর্তমান ইউপি সদস্য হুমায়ুন কবির টুলুর গত ৩০ জুলাই ১০ টাকা মূল্যের চালের কার্ড লাইনে দাড়ানো সুবিধাভোগীদের অনলাইন আগে পরে করা নিয়ে উভয়ের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। সে কারণে ১ আগষ্ট সোমবার টুলু বরিশাল থেকে বাসার উদ্দেশ্যে ফেরার পথে ধামুরা দক্ষিণপাড় টিপু মৃধার বাড়ির সামনে পৌছামাত্র পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে তানভীর হোসেন ফারুকের নেতৃত্বে তার ভাই লিটন হাওলাদার, মনির হাওলাদার, মোশারেফ হাওলাদার এবং প্রফুল্ল হালদারের ছেলে হৃদয় হালদারসহ ৫/৬ জন সন্ত্রাসীরা মিলে রাত সাড়ে ১০টায় টুলুর মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাথাড়ি পিটিয়ে তাকে সংজ্ঞাহীন করে খালে ফেলে দেয়। তিনি আরো বলেন কাদের হাওলাদারের ছেলে তানভীর হোসেন ফারুকের বিরুদ্ধে প্রতারণার মাধ্যমে স্বর্ণ আত্মসাৎ, ইয়াবা, গাঁজা, গভীর নলকূপের কথা বলে টাকা আত্মসাৎসহ বিভিন্ন থানায় বাবুগঞ্জ থানায় ২০১৬ সালে জি,আর ৬৭, মাদারীপুর কালকিনি থানায় ২০২১ সালে জি,আর ১৬৪, গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া থানায় ২০১৮ সালে মামলা নং ২১-১৮, শরিয়তপুরের নড়িয়া থানায় ২০১৭ সালে মামলা নং ৩/১৮৪, উজিরপুর থানায় ২০২১ সালে জি,আর ৬৫, মামলা নং ১৩/১৩,২০১১ সালের মামলা নং ৪১,২০১১ সালে মামলা নং-৪১,২০১২ সালে মামলা নং-০১, একই সালে মামলা নং-৩৪, ১৭,১০,২০১৫ সালে মামলা নং-০২সহ ১৫টি মামলা চলমান রয়েছে। বহুবার পুলিশ, ডিবি ও র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হয়ে কারাভোগ করেছেন। এমনকী হামলার ঘটনায় মামলা করায় হুমকী অব্যাহত রেখেছে ওই সন্ত্রাসীরা। মূলত ইউপি নির্বাচনে তানভীর হোসেন ফারুক পরাজিত হওয়ায় ইউপি সদস্য টুলুর উপর এ হামলা চালানো হয়। এদিকে হামলার ঘটনা ও নিজের অপকর্ম ঢাকার জন্য ফারুক বাহিনী বিভিন্ন দপ্তরে ইউনিয়ন পরিষদে কয়েকজন সদস্যর বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার চালিয়ে হয়রানি করছে। ওই হামলাকারী ও অপপ্রচারকারীদের বিচারের দাবী জানিয়ে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন তিনি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইউপি সদস্য মোঃ সিরাজুল ইসলাম, আবু হানিফ, আবুল কালাম মোল্লা, সান্টু মোল্লা, শাহজাহান বেপারী, কবির হোসেন হাওলাদার, পার্থ প্রদীপ মন্ডল, মহিলা ইউপি সদস্য লিমা বেগম, সীমা বেগম। স্থানীয় বিশিষ্ট সমাজসেবক মাহাবুব আলম মিরণ, দফাদার শাহাদাৎ হোসেন, গ্রাম পুলিশ নজরুল বালী, ইউসুফ আলী হাওলাদারসহ অর্ধশতাধিক লোকজন। এদিকে ইউপি সদস্য আবু হানিফ অভিযোগ করে বলেন, আমার বিরুদ্ধেও মিথ্যা অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। সান্টু মোল্লা জানান, ফারুক হোসেন পরাজিত হয়ে বেপরোয়া হয়ে উঠে আমাদের সকলের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার চালিয়ে হয়রানি করছেন।