উজিরপুর প্রতিনিধি: বরিশালের উজিরপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে এক দিনমজুর আত্মহত্যা করেছে। আজ বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) সকালে দিনমজুর গোপাল দাস (৩০) এর ঝুলন্ত লাশ বড়াকোঠা তার নিজ বাড়ী থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।
পরিবার ও স্থানীয় সুত্রে সুত্রে জানা যায় বড়াকোঠা গ্রামের মৃত নিহার দাসের ছেলে দিনমজুর গোপাল দাসের সাথে পার্শ্ববর্তী বানারীপাড়া উপজেলার চাখার গ্রামের বিনয় শীলের মেয়ে শিখা দাস (২৭) এর ৮ বছর পূর্বে বিবাহ হয়। তাদের দাম্পত্য জীবনে প্রদীপ (৫), প্রসান্ত (৭) বয়সের দুটি পুত্র সন্তান রয়েছে।
গতকাল বুধবার (১৬ জুন) স্ত্রী শিখা দাস বরিশালের ভাড়ায় বাসায় ছিল। ওই রাতে স্বামী গোপাল দাস বাড়ীর সম্মুখে একটি আমলকি গাছের সাথে গলায় ফাস দিয়ে আত্মহত্যা করে। পরের দিন আজ বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) সকালে পাশের বাড়ীর রুপান্তি নামের এক নাবালিকা শিশু তার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়। লাশ দেখে শিশুটির ডাকচিৎকার শুনে স্থানীয়রা ঘটনাস্থল জরো হয়। বিষয়টি থানা পুলিশকে অবহিত করে স্থানীয়রা।
খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ভাবে উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জিয়াউল আহসান একদল চৌকস পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে ওই দিনমজুরের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বরিশাল মর্গে প্রেরণ করেন। এদিকে স্ত্রী শিখা দাসের দাবী পরকিয়ার জের ধরে তার স্বামী আত্মহত্যা করেছে। এ বিষয়ে সুষ্ঠ বিচারের দাবী জানিয়ে প্রশাসনের সু-দৃষ্টি কামনা করেন তিনি। উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জিয়াউল আহসান বিটিসি নিউজকে জানান, পরকিয়ার জেরেই আত্মহত্যা করতে পারে। তাই ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে ইতিমধ্যে ময়না তদন্তের জন্য বরিশাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।