উজিরপুর ( বরিশাল) প্রতিনিধি: বরিশালের উজিরপুরে জমি বিরোধের জের ধরে বীর মুক্তিযোদ্ধাকে কুপিয়ে হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে বামরাইল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ওসহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। ১লা আগষ্ট রবিবার বিকাল ৪ টায় ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মানববন্ধন ও আলোচনসভায় বামরাইল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি গৌরাঙ্গ লাল কর্মকারের সভাপতিত্বে ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মিজানুর রহমান কবিরের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা শাজাহান হাওলাদার, ৯নং সেক্টরের ডেপুটি কমান্ডার শ.জ আলম , আয়নাল হক, এম এ আউয়াল, সোলায়মান, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক জালাল গাজী, ইউনিয়ন শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন হাওলাদার, বিশিষ্ট সমাজসেবক মোঃ সুমন হাওলাদার হারিছ, ইউপি সদস্য আঃ সালাম সরদার, শাহজাহান বেপারী, শহিদুল ইসলাম জাকারিয়া, সাবেক ইউপি সদস্য নুরুল হক সরদার ইউনিয়ন যুবলীগের আহব্বায়ক পলাশ তালুকদার, যুগ্ম-আহব্বায়ক দেলোয়ার হোসেন সরদার, স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আল-আমিন খলিফা, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সম্পাদক মাইনুল ইসলাম, ছাত্রলীগ নেতা রিয়াদ সরদার প্রমুখ। এসময় রাস্তার দু’পাশে শত শত নারী পুরুষ এই মানববন্ধনে অংশগ্রহন করেন। সভায় বক্তারা অতিদ্রæত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করেন এবং আহত মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে চিকিৎসায় সহায়তা করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আহব্বান জানান উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের নেতৃবৃন্দ। উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আলী আর্শাদ জানান, নিহতর ছেলে জুয়েল দুইদিন পর ৩২ জনের নাম উল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ইতিমেধ্য ৫জনকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করেছি। বাকীদের গ্রেফতার করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। উল্লেখ্য, জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে গত বৃহস্পতিবার সকালে বীর মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার ও তার পরিবারের সদস্যদের কুপিয়ে জখম করে সন্ত্রাসীরা। হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দেলোয়ার মারা যান।