বরিশালের উজিরপুর উপজেলায় দুই শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার (১ মে) আর্ন্তজাতিক শ্রমিক দিবসে ওই উপজেলার পৃথক ইউনিয়ন থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

তারা হলেন, জল্লা ইউনিয়নে ৫৮ বছর বয়সী ধান কাটা শ্রমিক জব্বার শেখ ও বামরাইল ইউনিয়নে ২৭ বছর বয়সী অটোরিকশা চালক সবুজ হাওলাদার। তারা আত্মহত্যা করেছেন বলে জানা গেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উজিরপুর থানা পুলিশের ওসি জিয়াউল আহসান।

তিনি জানান, তাদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় পৃথক দুটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

উজিরপুর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) কমল জানিয়েছেন, খবর পেয়ে সকালেই লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে তিনি জানান, উপজেলার জল্লা ইউনিয়নের কারফা গ্রামে কৃষক নগেনের বাড়িতে ধান কাটতে আসেন বাগেরহাট জেলার পিছিডেমা গ্রামের মৃত মনসুর শেখের ছেলে জব্বার শেখ।

শনিবার ভোর ৬টায় ওই বাড়ির বকুল রাণী নামক এক বাসিন্দা পুকুর পাড়ের আম গাছের সঙ্গে গামছায় ফাঁস দেওয়া ধানকাটা শ্রমিক জব্বার শেখকে দেখতে পান। জব্বার শেখ ২৩ এপ্রিল বাগেরহাট থেকে ৩২ জনের একটি টিমের সঙ্গে জল্লায় আসেন। এখান থেকে ৬ জনের একটি টিম নিয়ে নগেনের ক্ষেতের ধান কাটার চুক্তি করেন। সেখানেই থাকতেন ৬ জনের ধান কাটা শ্রমিকরা।

অপরদিকে, বামরাইল ইউনিয়নের মুগাকাঠী গ্রামের আঃ খালেক হাওলাদারের ছেলে অটোচালক সবুজ হাওলাদার শনিবার ভোররাতে ঘরের আড়ার সঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

পুলিশ জানিয়েছে, মা-বাবার সঙ্গে গত রাতে কথা কাটাকাটি হয় সবুজের। মূলত অভিমান করে আত্মহত্যা করতে পারেন সবুজ। সবুজ বিবাহিত হলেও ঘটনার সময়ে তার স্ত্রী বাবার বাড়িতে ছিলেন।