সার্চ ইঞ্জিন হিসেবে গুগল এখন অন্যতম জনপ্রিয় সাইট। হাতের মুঠোয় এখন গুগল। হাতে স্মার্টফোন আর ইন্টারনেট থাকলেই এখন অজানা থাকবে না কোনো কিছুই। কিছু জানতে ইচ্ছা হলেই গুগলে সার্চ করেবেন নিশ্চয়ই। কিন্তু আপনার এই অভ্যাসকেই ফাঁদ হিসেবে ব্যবহার করছে এক শ্রেণির প্রতারক।

সার্চ ইঞ্জিন হিসাবে গুগলের নির্ভরযোগ্যতা নিয়ে কোনো প্রশ্নই ওঠে না। তবে আমজনতার গুগল সার্চের অভ্যাসেই ফাঁদ পাতে প্রতারকরা। ফলে বিপদে পড়তে পারেন যে কোনো মুহূর্তেই। তাই কিছু বিষয় গুগলে সার্চ করবেন না কখনোই। এতে আপনার নানান ব্যক্তিগত তথ্য চলে যেতে পারে প্রতারক চক্রের হাতে।

চলুন জেনে নেওয়া যাক সেসব-


> কখনোই অনলাইন বিপননের নাম্বার গুগলে সার্চ করবেন না। মনে করুন, আপনি অনলাইনে কোনো জিনিস কিনেছিলেন। সেটি রিটার্ন করায় রিফান্ড পাবেন। কিন্তু ২ দিন পরেও টাকা ফেরত পাননি।

এমন সময়ে সেই সংস্থার কাস্টমার কেয়ার নাম্বার গুগলে খুঁজতে যাবেন না। অনলাইন বিপনন সংস্থার আদলেই নকল ওয়েবসাইট খোলে প্রতারকরা। সেখানে থাকে ভুয়ো নম্বর। সেই নম্বরে ফোন করলেই পড়তে হবে ফাঁদে। সম্প্রতি এ ধরণের বেশ কিছু ঘটনা হয়েছে। ব্যাঙ্ক ডিটেলস জেনে নিয়ে চুরি করা হয়েছে টাকা।

> গুগল সার্চ থেকে কোনো ব্যাঙ্কের ওয়েবসাইটে ঢোকার আগে সাবধান। ভুয়া ওয়েবসাইট থেকে সর্বস্বান্ত হতে পারেন। তাই ব্যাঙ্কিং-এর ক্ষেত্রে অবশ্যই সরাসরি ওয়েব অ্যাড্রেস টাইপ করে খুলুন। অথবা সেই ব্যাঙ্কেরই তৈরি অ্যাপ ব্যবহার করুন। অনলাইন লেনদেনের সময় থাকুন সতর্ক।

> গুগলে আরেকটি বিষয় সার্চ করবেন না। তা হলো বিভিন্ন অ্যাপ ও সফটওয়্যার। অনেকেই আছেন যারা সরাসরি গুগল সার্চে অ্যাপ ও সফটওয়্যার খোঁজেন। কিন্তু এভাবে ফাইল ডাউনলোডের ক্ষেত্রে সবসময়েই ঝুঁকি থেকে যায়। অজানা সাইট থেকে অ্যাপের আকারে ডাউনলোড হতে পারে ম্যালওয়্যার। ইনস্টল করার সঙ্গে সঙ্গেই আপনার প্রাইভেসির দফারফা। স্মার্টফোনের বারোটাও বাজতে পারে।


>গুগল সার্চ ব্যবহার করে ডাক্তারি না করাই ভালো। টুকটাক শরীর খারাপে পথ্য, প্রাথমিক চিকিৎসা ইত্যাদি দেখতেই পারেন। তবে শরীর খারাপের ক্ষেত্রে গুগল সার্চ করে কোনো ওয়েবসাইট দেখে ডাক্তারি করা মোটেও বিচক্ষণ কাজ নয়।

> গুগলে শেয়ার বাজার, ট্রেডিং-এর বুদ্ধি সম্মন্ধে সার্চ করলেই হাজারো ওয়েবসাইট ভরা পরামর্শ পাবেন। কিন্তু নির্দিষ্ট ও নামি কিছু ওয়েবসাইট ছাড়া শেয়ার বাজার সংক্রান্ত বুদ্ধি না নেওয়াই শ্রেয়। একই সঙ্গে বিভিন্ন ভুয়ো সংস্থা ‘ট্রেডিং’-এর নাম করে প্রতারণার ফাঁদ পেতে থাকে। তাই এই বিষয়ে গুগল সার্চের উপর বেশি নির্ভর করবেন না।