নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ-এর বর্তমান আমির ডাক্তার মো. শফিকুর রহমানের ছেলে ডাক্তার রাফাত চৌধুরী ওরফে সাদিক সাইফুল্লাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট বলছে, তিনি নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলাম বাংলাদেশের সিলেট অঞ্চলের প্রধান সমন্বয়ক।

সিটিটিসির স্পেশাল অ্যাকশন গ্রুপের উপকমিশনার মিশুক চাকমা রাফাতকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি কালের কণ্ঠকে নিশ্চিত করে বলেন, তাকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

সিটিটিসির তদন্ত কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, রাফাত চৌধুরী অনসার আল ইসলামের সিলেট অঞ্চলের প্রধান সমন্বয়ক।

পার্বত্য অঞ্চলে রোহিঙ্গাদের উগ্রবাদী কর্মকাণ্ড সংগঠিত করা এবং আরাকানে কথিত হিজরতে জড়িত তিনি। গত ১ নভেম্বর সায়েদাবাদ থেকে আনসার আল ইসলামের তিন সদস্যকে গ্রেপ্তার করে সিটিটিসির স্পেশাল অ্যাকশন গ্রুপের বোম ডিসপোজাল ইউনিট। তিন আসামি গত ৬ নভেম্বর ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।
তারা আদালতে জানিয়েছেন, রাফাত রাফাত সাদিক সাইফুল্লাহ নামে একজন তাদের আনসার আল ইসলামের কথিত দাওয়াত দেয়। ধর্মভীরু তরুণদের আনসার আল ইসলামে যুক্ত করার পাশাপাশি সিলেট অঞ্চলে সংগঠিত করছিলেন তিনি। নজরদারির মাধ্যমে সিটিটিসি তাকে গ্রেপ্তার করেছে।