উজিরপুর প্রতিনিধিঃ বরিশালের উজিরপুরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে শহীদ মিনারের বেদিতে জুতা পায়ে দিয়ে উঠতে নিষেধ করায় প্রধান শিক্ষককে টেটা দিয়ে ধাওয়া দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে এক স্কুল ছাত্রের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার উপজেলার শোলক ভিক্টোরিয়া মাধ‍্যমিক বিদ‍্যালয়ের প্রাঙ্গনে। স্থানীয় ও শিক্ষার্থীদের সূত্রে জানাযায়, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে শোলক ভিক্টোরিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্রভাতফেরি শেষ শহীদ বেদিতে জুতা নিয়ে উঠতে শিক্ষার্থীদের নিষেধ করে প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হোসেন সরদার। শিক্ষকের নির্দেশ অমান্য করে জুতা নিয়ে শহীদ বেদিতে জুতা নিয়ে উঠে ওই বিদ‍্যালেয়র ভোকেশনাল শাখার ১০ম শ্রেনীর ছাত্র সিয়াম সরদার। এসময় প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হোসেন শিক্ষার্থী সিয়ামকে বকাঝকা করে এবং থাপ্পড় দিয়ে শহীদ বেদি থেকে নামিয়ে দেয়। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে বিদ্যালয়ের বাইরে টেঁটা নিয়ে অপেক্ষা করছিল সিয়াম।
মোজাম্মেল হোসেন অভিযোগ করেন, সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তিনি বাড়িতে যাওয়ার জন্য বিদ্যালয় থেকে বের হন। এ সময় সিয়াম তাঁর ওপর হামলা করার জন্য টেঁটা নিয়ে ধাওয়া করে। তিনি আত্মরক্ষার জন্য দৌড়ে এসে বিদ্যালয়ের নিজ কক্ষে ঢুকে পড়েন। এ সময় ওই ছাত্র কক্ষের বাইরে অপেক্ষা করতে থাকলে মোজাম্মেল হোসেন অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন। পরে তিনি বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি ও স্থানীয়দের খবর দিলে তাঁরা বিদ্যালয়ে এসে তাঁকে উদ্ধার করেন। অভিযুক্ত ছাত্র সিয়াম ঘটনার পর থেকে পালিয়ে থাকায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি। সিয়ামের বাবা মো. জালাল সরদার বলেন, ‘ছেলের আচরণে আমি লজ্জিত। স্যারদের (শিক্ষকদের) যেকোনো সিদ্ধান্ত আমি মেনে নেব।”
বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য হারুন খান জানান, একজন ছাত্রের কাছ থেকে এ ধরনের আচরণ কাম্য নয়। এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ওই ছাত্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আগামীকাল বুধবার বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির জরুরি সভা ডাকা হয়েছে।
বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোঃ মিজানুর রহমান কিরোন তালুকদার জানান, এ ঘটনা জানতে পেরে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির জরুরী সভ ডাকা হয়েছে। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অভিযুক্ত শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আলী আর্শাদ জানান, এ ঘটনায় থানায় কোন লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।