বরিশালের উজিরপুর উপজেলার জল্লা ইউনিয়নের মুন্সিরতাল্লুক গ্রামের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজ দিয়ে চলাচল করছে গ্রামবাসী। যেকোনো সময় ব্রিজটি ভেঙে পড়তে পারে।

বুধবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ব্রিজটির পিলার ভেঙে প্রায় সম্পূর্ণ পড়ে আছে। ব্রিজের দুই পাশে রশি দিয়ে বেঁধে কোনো রকমে দাঁড় করিয়ে রেখে চলাচল করছে এলাকাবাসী।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এলজিএসপি-২ প্রকল্পের আওতায় পূর্ব মুন্সিরতাল্লুক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের সুবিধার জন্য ইউনিয়ন পরিষদ ২০১৫–১৬ অর্থবছরে সোয়া ১ লাখ টাকা ব্যয়ে ব্রিজটি নির্মাণ করে। কিন্তু নির্মাণের কিছুদিন পর ব্রিজের খুঁটি ভেঙে হেলে পড়ে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, ব্রিজ দিয়ে শুধু শিক্ষার্থীরা নয়, এলাকাবাসীও যাতায়াত করতে ভয় পায়। যেকোনো সময় ব্রিজটি ভেঙে পড়তে পারে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিভা রানি মণ্ডল বলেন, `সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী স্কুল খোলার প্রস্তুতি নিয়েছি। কিন্তু ছোট ছোট বাচ্চাদের নিয়ে খুব আতঙ্কে আছি। ওই ব্রিজ ছাড়া বিদ্যালয়ে আসার বিকল্প কোনো পথ নেই।

জল্লা ইউপি চেয়ারম্যান বেবি রানী বলেন, আমার স্বামী চেয়ারম্যান থাকাকালীন ব্রিজটি নির্মাণ করা হয়েছে। বর্তমানে ব্রিজটির অবস্থা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। দ্রুত ব্রিজের সমস্যার সমাধান করা হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণতি বিশ্বাস বলেন, বিষয়টি জানার পর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।