ঢাকা: শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়াকে অসদাচরণ ও দুর্নীতির দায়ে বিভাগীয় মামলার পর এবার ওএসডি করা হয়েছে। একই সঙ্গে ওএসডি করা হয়েছে জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের (আইপিএইচ) পরিচালক ডা. মোহাম্মদ আব্দুর রহিমকে।

মঙ্গলবার (০৩ নভেম্বর) স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের এক আদেশে তাদের ওএসডি করা হয়।

আদেশে বলা হয়, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক হিসেবে কাউকে নিয়োগ না দেওয়া পর্যন্ত হাসপাতালের আর্থিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য প্রতিষ্ঠানটির উপ-পরিচালক ডা. কে এম মামুন মোর্শেদকে সাময়িকভাবে পরিচালকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

একই সঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ডা. তানভীর আহমেদ চৌধুরীকে জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালকের (চলতি দায়িত্ব) দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত বিসিএস প্রশাসন (স্বাস্থ্য) ক্যাডার/স্বাস্থ্য সার্ভিসের পদায়নকৃত ওই কর্মকর্তাদের আগামী তিন কর্মদিবসের মধ্যে বদলিকৃত স্থানে যোগ দিতে বলা হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

অন্যথায় চতুর্থ কর্মদিবসে বর্তমান কর্মস্থল থেকে তাৎক্ষণিক অব্যাহতি হিসেবে গণ্য হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

গত বুধবার এক বিজ্ঞপ্তি দিয়েছিলেন জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অফিস চলার সময় জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীকে মুঠোফোনের শব্দ বা মুঠোফোন বন্ধ রাখতে হবে। ইনস্টিটিউটের পুরুষদের টাকনুর উপরে এবং নারীদের হিজাবসহ টাকনুর নিচে কাপড় পরতে হবে। একই সঙ্গে পর্দা মেনে চলারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

পরদিন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এই জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়। সেদিনই এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বুধবারের দেওয়া নির্দেশ বাতিল করেন মুহাম্মদ আবদুর রহিম।